ইমাম তিরমিজী রহ. তিরমিজি শরীফের ৩২৯৮ নং হাদীসে একটি দীর্ঘ হাদীস উল্লেখ করেছেন। হাদীসটির মান নিয়ে বেশ বিতর্ক রয়েছে। আমাদের আলোচনা সেটি নয়। হাদীস উল্লেখ করে ইমাম তিরমিজী রহ. হাদীসের একটি তাবীল বা ব্যাখ্যা উল্লেখ করেছেন। সেই তাবীল সম্পর্কে ইবনে তাইমিয়া রহ. ও তার ছাত্র ইবনুল কাইয়্যিম রহ. বিশেষ মন্তব্য করেছেন। আমরা এখানে তাদের মন্তব্য দু’টি আলোচনা করবো।

প্রথমে হাদীসের শেষ অংশটি দেখা যাক।

রাসূল স. বলেছেন,
والذي نفس محمد بيده لو أنكم دليتم رجلا بحبل إلى الأرض السفلى لهبط على الله
সেই মহান সত্ত্বার শপথ, যার হাতে মুহাম্মাদের প্রাণ, তোমরা যদি কাউকে দড়ি দিয়ে ভূপৃষ্ঠের তলদেশে নামিয়ে দাও, তাহলে সে আল্লাহর কাছে গিয়ে উপনীত হবে।

ইমাম তিরমিজী রহ. এই হাদীসের ব্যাখ্যায় লিখেছেন,
فسر بعض أهل العلم هذا الحديث فقالوا‏:‏ إنما هبط على علم الله وقدرته وسلطانه‏.‏
আলেমগণ এই হাদীসের ব্যাখ্যা করেছেন। তারা বলেছেন, ঐ ব্যক্তি আল্লাহর ইলম, কুদরত ও ক্ষমতার কাছে উপনীত হবে।

অর্থাত হাদীসে রয়েছে জমিনের তলদেশে গেলেও সেখানে আল্লাহ রয়েছেন। এখানে ইমাম তিরমিজী রহ. আলেমদের ব্যাখ্যা উল্লেখ করেছেন, জমিনের তলদেশে আল্লাহ রয়েছেন এর অর্থ হলো, আল্লাহর ইলম ও কুদরত রয়েছে।

এটি ইমাম তিরমিজী ও অন্যান্য আলেমদের পক্ষ থেকে তাবীল বা ব্যাখ্যা।

আসুন এবার দেখি, এই ব্যাখ্যা সম্পর্কে ইবনে তাইমিয়া রহ. ও তার ছাত্র ইবনুল কাইয়্যিম রহ. কী মন্তব্য করেছেন।

ইবনুল কাইয়্যিম রহ. ইমাম তিরমিজী রহ. এর তাবীল সম্পর্কে বলেছেন,
وأما تأويل الترمذي وغيره بالعلم فقال شيخنا : هو ظاهر الفساد من جنس تأويلات الجهمية
অর্থ: ইমাম তিরমিজী ও অন্যান্যরা হাদীসে ভূগর্ভে আল্লাহর কাছে উপনীত হবে এর ব্যাখ্যায় বলেছেন আল্লাহর ইলমের কাছে উপনীত হবে। তাদের এ তাবীল সম্পর্কে আমার উস্তাদ (ইবনে তাইমিয়া রহ:) বলেছেন, তাদের এই তাবীলটি সুস্পষ্ট বাতিল। এটি জাহমিয়াদের তাবীলের মতো।
সূত্র: মুখতাসারুস সাওয়াকিল মুরসালা। https://goo.gl/F8G6yI

ইবনে তাইমিয়া রহ. উক্ত বক্তব্যটি তার মাজমুউয়াতুল ফাতাওয়াতেও রয়েছে। মূল কিতাবের ষষ্ঠ খন্ডের ৩৪৩ পৃষ্ঠায় বক্তব্যটি রয়েছে। পিডিএফ থেকে দেখুন,
https://goo.gl/0UGvAF

ইমাম তিরমিজী রহ. যে তাবীলটি উল্রেখ করেছেন এটি অন্যান্য অনেক আলেমের তাবীল। এই তাবীল সম্পর্কে ইবনে তাইমিয়া রহ.এর অভিমত হলো এটি স্পষ্ট বাতিল এবং জাহমিয়াদের তাবীল। ইমাম তিরমিজী রহ. এর তাবীল হলো তাদের নিকট জাহমিয়াদের তাবীল।

আমি এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করছি না….

Print Friendly